বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪
৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাব ও স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্কের অংশীদারিত্ব

মো কায়সার হামিদ রাসেল
প্রকাশক

২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত, সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ এবং ২১০০ সালের মধ্যে একটি নিরাপদ পরিকল্পিত ব-দ্বীপের রূপকল্প অর্জনের লক্ষ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপে, স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন  ই-প্রেস ক্লাব একটি মূল্যবান অংশীদার হিসেবে স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক এ যুক্ত হয়েছে।

 এই কৌশলগত সহযোগিতার লক্ষ্য বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়নের পথকে প্রশস্ত করতে সাংবাদিক সমাজ একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে কাজ কারবে।

স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশ সরকারের মিশন ও ভিশন বাস্তবায়নের অন্যতম প্লাটফর্ম যা সরকারের উচ্চপদস্থ নীতিনির্ধারকদের দ্বারা পরিচালিত। বাংলাদেশ সরকার পরিচালিত এই সংগঠনটির ওয়েবসাইট ঘুরে দেখা যায় 

উপদেষ্টাঃ-
মাননীয় মন্ত্রী এম এ মান্নান, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, মানীয় সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমান,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক,আইসিটি বিভাগ, মোঃ মাহবুব হোসেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মোহাম্মদ তোফাজ্জেল হোসাইন মিয়া, মুখ্য সচিব, কাজী এম আমিনুল ইসলাম, চেয়ারম্যান আইডিয়া ফাউন্ডেশন, অনির চৌধুরী, নীতি উপদেষ্টা a2i.

এসবিএন কো-চেয়ারম্যানঃ-
মোঃ শামসুল আরেফিন, সচিব, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, মাননীয় সংসদ সদস্য মোঃ আবুল কালাম আজাদ,ভাইস চেয়ারম্যান,আইডিয়া ফাউন্ডেশন, সাবেক মুখ্য সচিব।

এসবিএন কার্যনির্বাহী সদস্যঃ-
মানিক মাহমুদ, প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট ইনোভেশন a2i-্আসপায়ার টু ইনোভেট, শরিফুল ইসলাম, প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম, মোঃ মনজুরুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, আইডিয়া ফাউন্ডেশন।

এসবিএন থিম্যাটিক এক্সিকিউশন টিমঃ-

এসবিএন থিম্যাটিক টিম কো-অর্ডিনেটর
সাজিদ মাহবুব, প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা ও নির্বাহী সম্পাদক বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম।
উপরে উল্লেখিত বিশিষ্টজনেরা এ সংগঠন টি পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। 

 স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক টেকসই ভবিষ্যতের দিকে দেশকে চালিত করার জন্য নিবেদিত, বাংলাদেশকে স্মার্ট সমাধান এবং টেকসই অনুশীলনের একটি নেতৃস্থানীয় কেন্দ্রে রূপান্তর করার জন্য একটি বিস্তৃত রোডম্যাপ রূপরেখা দিয়েছে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিকে একীভূত করে এবং কৌশলগত অংশীদারিত্বকে উৎসাহিত করার মাধ্যমে, নেটওয়ার্কটি এমন একটি বাংলাদেশের কল্পনা করে যা অন্তর্ভুক্তি, পরিবেশগত স্টুয়ার্ডশিপ এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির উপর প্রতিষ্ঠিত।
আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাবের সাথে অংশীদারিত্ব এই উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ বাস্তবায়নের পথে একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক নির্দেশ করে। সাংবাদিক, মিডিয়া পেশাদার এবং যোগাযোগ বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত সংস্থা হিসাবে, ই-প্রেস ক্লাব অভিজ্ঞতা ও জ্ঞানের পরিধি বিস্তৃত করে। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা এবং সামাজিক পরিবর্তনের প্রচারে তাদের প্রতিশ্রুতি স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্কের মূল মূল্যবোধের সাথে নির্বিঘ্নে সারিবদ্ধ। এই সহযোগিতার মাধ্যমে, উভয় সংস্থাই তাদের নিজ নিজ শক্তিকে কাজে লাগিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে ভূমিকা রাখতে চায়। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংগঠনের উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সৈয়দ ফজলুল কবীর বলেন,

আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন ই-প্রেস ক্লাব দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকদের প্রযুক্তিগত উন্নয়নে কাজ করে আসছে। সাংবাদিক সমাজকে স্মার্ট বাংলাদেশের উপযোগী করে গড়ে তুলতে সংস্থাটি বেশ কিছু কার্যক্রম হাতে নিয়েছে

যার সবগুলো সাংবাদিক সেবায় নিবেদিত।

এক প্লাটফর্মে সাংবাদিকরা পাবে সকল ধরনের উন্নত সেবা যা তাদের জীবন ধারাকে সমৃদ্ধ করে তুলবে।

সাংবাদিকদের অধিকার রক্ষায়, উন্নয়নে এবং সাংবাদিকতার নীতিকে প্রতিষ্ঠিত করতে সংস্থাটি প্রতিশ্রুতি বদ্ধ।

 তিনি আরো বলেন দেশের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে সাংবাদিকরা স্মার্ট না হলে, স্মার্ট বাংলাদেশ অপরিপূর্ণ রয়ে যায়। এর মাধ্যমে তিনি দেশের সকল বৈধ সাংবাদিকদের ই-প্রেস ক্লাবে যুক্ত হয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ায় আহবান জানান।

সংগঠন দুটি অংশীদারিত্বের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রগুলি যেমন তথ্য প্রচার, তথ্য প্রাপ্তি, জনসাধারণের সম্পৃক্ততা, জবাবদিহিতা এবং মিডিয়ার দ্বারা যোগাযোগের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে, তারা পরিবর্তন-প্রস্তুতকারীদের কণ্ঠস্বরকে প্রসারিত করতে, উদ্ভাবনী সমাধানের আলোকপাত করতে এবং একটি স্মার্ট, আরও স্থিতিস্থাপক বাংলাদেশ গড়ার দিকে সম্মিলিত পদক্ষেপকে অনুপ্রাণিত করতে চায়।

অংশীদারিত্বের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে, স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্কের একজন প্রতিনিধি সহযোগিতার বিষয়ে উৎসাহ প্রকাশ করেন, ই-প্রেস ক্লাব তাদের আউটরিচ এবং প্রভাব বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার উপর জোর দেন। অংশীদারিত্বটি সহযোগিতা, জ্ঞান-আদান-প্রদান এবং সক্ষমতা-নির্মাণের জন্য নতুন সুযোগগুলিকে অনুঘটক করবে বলে আশা করা হচ্ছে, যা শেষ পর্যন্ত একটি স্মার্ট বাংলাদেশের শেয়ার্ড ভিশনের দিকে অগ্রগতি ত্বরান্বিত করবে। বাংলাদেশ যখন অগ্রগতি এবং সমৃদ্ধি দ্বারা সংজ্ঞায়িত টেকসই ভবিষ্যতের দিকে অগ্রসর হচ্ছে,  তখন এই ধরনের অংশীদারিত্ব ইতিবাচক পরিবর্তন চালনা করে সম্মিলিত পদক্ষেপ, সহযোগিতা এবং উদ্ভাবনের গুরুত্ব তুলে ধরে। স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক এবং ই-প্রেস ক্লাবের যোগদানের মাধ্যমে, রূপান্তর এবং প্রবৃদ্ধির একটি নতুন অধ্যায়ের প্লাটফর্ম তৈরি হয়েছে, যা জাতির জন্য একটি উজ্জ্বল, স্মার্ট এবং আরও সমৃদ্ধ ভবিষ্যতের পথ প্রশস্ত করছে। এই সহযোগিতা একটি স্মার্ট বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নের পথে অগ্রগতির একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ চিহ্নিত করে।

থেকে আরও পড়ুন

  গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ উপজেলার মনমথ গ্রামের ডাক্তার মোড়ে ২০মে/২০২৪ রবিবার সকাল ৮টায় এ ঘটনা ঘটেছে...

  হবিগঞ্জের মাধবপুরে সোনাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদেরকে সরাসরি...

কুড়িগ্রামে বিএনপি ৪ নেতা বহিষ্কার মোবাশ্বের নেছারী কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামে দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে...

মোঃ হাচিবুর রহমান,কালিয়া প্রতিনিধিঃ চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ঘুষ লেনদেন, নিয়মের তোয়াক্কা না করে নিজের আত্মীয়দের...